শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন

দৃষ্টি দিন:
সম্মানিত পাঠক, আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। প্রতিমুহূর্তের সংবাদ জানতে ভিজিট করুন -www.coxsbazarvoice.com, আর নতুন নতুন ভিডিও পেতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল Cox's Bazar Voice. ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে শেয়ার করুন এবং কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

কুতুবদিয়ায় ছোট ভাইয়ের দায়ের কুপে বড় ভাইসহ পরিবারের ৪ সদস্য আহত

ভয়েস প্রতিবেদক:

কুতুবদিয়ায় ছোট ভাইয়ের দায়ের কুপে বড় ভাইসহ পরিবারের ৪ সদস্য আহত হয়েছে। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৭টারদিকে কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের কালারমারপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় আহতদের কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের কালারমারপাড়া এলাকা মৃত, হাজি মুনিরুজ্জামানের ছেলে মোস্তাক আহমদ (৭০) দীর্ঘদিন ধরে পৈতৃক বাড়িতে বসবাস করে আসছেন। পিতার মৃত্যুর পর সমস্ত জমি-জমা শরীয়া মোতাবেক ভাই-বোনদের মাঝে ভাগভাটোয়ারা করে নিজ নিজ জমিতে ভোগ দখল করে আসছিল। সম্প্রতি মোস্তাক আহমদ তার বাড়ি ভেঙে নতুন করে ঘর তৈরী করেন। নতুন করে ঘর তৈরীর বিষয়টি আপন ছোট ভাই নুরুল আলম মেনে নিতে পারেননি। তিনি ওখান থেকে জমি পাবেন বলে অজুহাত দেখায়। অথচ দীর্ঘদিন এসব বিষয়ে পারিবারিকভাবে কোন ধরণের কারও অভিযোগ ছিল না। কিন্তু, গত শুক্রবার সকালে ছোট ভাই নুরুল আলম জমি পাওয়ার অভিযোগ তুলেন। এসময় বড় ভাই মোস্তাক আহমদ জমি পাওয়ার বিষয়টি কাগজপত্রের উপর নির্ভরের কথা বলা হলে ছোট ভাই নুরুল আলম ক্ষিপ্ত হন। এক পর্যায়ে স্ত্রী শরিফুন্নেছা, মেয়ে, তাসমিন আক্তার, আরনিকা বেগমসহ আরও অনেকে দা, ছুরি ও লাঠি নিয়ে আকস্মিক আক্রমণ করে। এসময় বড় ভাই মোস্তাক আহমদ (৭০) কে মাথায় কুপ দিয়ে রক্ষাক্ত জখম করে। তাকে বাঁচাতে ছেলে আরাফাতুল মুনির (২৬), স্ত্রী জোবাইদা বেগম (৬০) ও এসএসসি পরীক্ষার্থী মেয়ে মহিমা ফর্মা (১৬) এগিয়ে আসলে তাদেরও মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। এসময় স্থানীয় দ্রুত এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে কুতুবদিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে অবস্থা অবনতি হওয়ায় কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধী আহত আরাফাতুল মুনির জানান, ‘জন্মলগ্ন থেকে বসতভিটায় ভোগ করে আসছেন তার পিতা মোস্তাক আহমদ। কিন্তু, চাচা নুরুল আলম অনৈতিকভাবে জমির মালিকানা দাবি করেন। এক পর্যায়ে দা, কুড়াল ও লাঠি সহ দেশীয় অস্ত্র¿ নিয়ে আকস্মিক হামলা করেন। এ ব্যাপারে কুতুবদিয়া থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

এব্যাপারে অভিযুক্ত নুরুল আলমের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

ভয়েস/আআ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020
Design & Developed BY jmitsolution.com