শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

দৃষ্টি দিন:
সম্মানিত পাঠক, আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। প্রতিমুহূর্তের সংবাদ জানতে ভিজিট করুন -www.coxsbazarvoice.com, আর নতুন নতুন ভিডিও পেতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল Cox's Bazar Voice. ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে শেয়ার করুন এবং কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

৩২ বছর পর ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা মুখোমুখি হবে?

খেলাধুলা ডেস্ক:
ভেবে দেখুন মাঠে লিওনেল মেসি এক দিকে। অন্য প্রান্তে নেইমার জুনিয়র। দুজনই মুখোমুখি। এই কাতার বিশ্বকাপে! ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা মহারণ হবে ভাবতেই অবাক লাগছে। আর এই চিন্তা-ভাবনার সুরটা এবার মিলে যাওয়ার ইঙ্গিত মিলছে। ১৯৯০ সালের পর আবার স্বপ্নের সুপার ক্লাসিকো হওয়ার দারুণ সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

কাতার বিশ্বকাপে দারুণ ফর্মে রয়েছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। শেষ ষোলর বাধা পেরিয়ে এখন কোয়ার্টার ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে লাতিন দুই দেশ। একই দিনে ব্রাজিল যদি ক্রোয়েশিয়াকে হারাতে পারে আর আর্জেন্টিনা জিততে পারে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে—তাহলে তো কোনও কথাই নেই। বিশ্বের কোটি কোটি সমর্থকরা সেই ম্যাচের দিকে চেয়ে থাকবে। থাকবে অপেক্ষায়। সেটারই বাস্তব রূপ দেখার তর যে সইছে না!

বিশ্বজুড়ে ফুটবল ভক্তদের কাছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ মানে অন্যরকম উন্মাদনা। তবে তার আগে তো কোয়ার্টার ফাইনাল বাধা তো পেরোতে হবে। যদিও দুইদলের কেউই স্বপ্নের ম্যাচ নিয়ে ভাবছেন না। আপাতত ভাবনা কোয়ার্টার ফাইনাল পর্ব নিয়ে।

ব্রাজিলের ৩৯ বছর বয়সী তারকা দানি আলভেজ যেমন বলেছেন,‘আমরা এখানে প্রতিপক্ষ বেছে নিতে আসিনি। বিপক্ষে যারাই থাকুক লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য সব কিছু দিয়ে লড়াই করতে হবে আমাদের। ব্রাজিল এখন কোয়ার্টার ফাইনালে। প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়াকে যথাযথ সম্মান করে এই ম্যাচে মনোযোগ দিতে হবে। ক্রোয়েশিয়ার বিশ্বমানের অনেক ফুটবলার আছে। ওরা আমাদের ১১০ শতাংশ মনোযোগ পাওয়ার যোগ্য। ’

সেমিফাইনালে প্রতিপক্ষ কে হবে তা নিয়ে না ভাবলেও লিওনেল মেসিকে ঘিরে উচ্ছ্বসিত প্রশংসা ঝরলো একসময়ের সতীর্থ আলভেজের কণ্ঠে, ‘এখন মেসিই আর্জেন্টিনা। সব কিছু মেসিকে ঘিরে হচ্ছে, তার পা দিয়ে। আমার মনে হয় মেসি বিধ্বংসী ফর্মে আছে। বিশ্বকাপে হিসাবে রাখতে হবে এমন খেলোয়াড়দের একজন ও। অবশ্য নামের কারণে মেসি আলোচনায় আছে এমনিতেই।ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা এখন পর্যন্ত মুখোমুখি হয়েছে ১০৭ বার। এর মধ্যে ৪০টি করে জয় আছে দুইদলের। বাকি ২৩টি ম্যাচ ড্র হয়েছে। তবে বিশ্বকাপে মাত্র চারবার দেখা হয়েছে তাদের। ব্রাজিল জিতেছে দুইবার,আর্জেন্টিনার একবার ও ড্র হয়েছে অন্য ম্যাচটি।

১৯৭৪ সালে প্রথম মুখোমুখি হয়েছিল দুইদল। আর সর্বশেষ ১৯৯০ সালের দেখাতে ম্যারাডোনার পাসে ক্যানিজিয়া দারুণ লক্ষ্যভেদে তাফারেলকে হারিয়ে ম্যাচ জেতার নায়ক বনে যান।

তবে সবশেষ কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনার কাছে হেরেছে ব্রাজিল। এত তথ্য-পরিসংখ্যান টেনে আনা হচ্ছে আসলে দুই দলের স্বপ্নের সেমিফাইনালের জন্য। তার আগে কোয়ার্টার ফাইনালে জয়টা নিশ্চিত করতে হবে দুইদলকে। তাহলেই যে স্বপ্নের ক্লাসিকো দেখার সৌভাগ্য হবে লক্ষ-কোটি সমর্থকদের!

ভয়েস/আআ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020
Design & Developed BY jmitsolution.com